ব্যায়াম না করে এবং খাদ্যাভ্যাসের পরিবর্তন না করেই ওজন কমানোর তিনটি উপায়

ব্যায়াম না করে এবং খাদ্যাভ্যাসের পরিবর্তন না করেই ওজন কমানোর তিনটি উপায়


ইস কোমরের ইঞ্চি ইঞ্চি মেদ যদি আপনাআপনি চলে যেত, ইস আমার শরিরটা যদি মেদহীন হত। এইরকম ইচ্ছা বারবার মনে ঘুরপাক খাচ্ছে কিন্তু জিমে যাওয়ার কথা শুনলেই মাথা ব্যাথা।

হতাশ হবেন না – এটাও সম্পুর্ন সম্ভব। ব্যায়ান না করে অথবা পাগলের মতো ডায়েট না করেও আপনি আপনার প্রিয় মেদকে বিদায় জানাতে পারেন।

এখানে সেই তিনটি অদ্ভুদ কার্যকরি পদ্ধতির কথাই বলা হয়েছে।

দম চর্চা/প্রাণায়াম

দম চর্চার প্রধান নিয়ম হচ্ছে আপনি বুক দিয়ে শ্বাশ নিবেন এবং ছাড়বেন না, শ্বাশ নিবেন এবং ছাড়বেন পেট দিয়ে। পাতলা কোমর, সুঘটিত পেটের মাংস, তলপেটের শক্ত মাংস সবকিছুই সম্ভব যদি আপনি ঠিকমতো প্রত্যেকদিন দম চর্চা/প্রাণায়াম করেন।

 

বিপরীত শাওয়ার

এইটা খুবই সহজ একটা পদ্ধতি । যখন আপনি গোসল করছেন তখন পানিকে পালাক্রমে একবার বরফ শিতল এবং আরেকবার গরম করে ব্যবহার করুন। এই বিপরীত গোসল শুধু আপনার ওজনই কমাবে না এছাড়াও অনেক রোগব্যাধি থেকে আপনাকে দূরে রাখবে যেমনঃ স্থুলতা, কর্মহীনতা, উচ্চ রক্তচাপ ইত্যাদি। যদিও এটা নিয়ে অনেক মতোবিরোধ আছে।

 

মালিশ/মর্দন

চর্বির বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার জন্য সবচেয়ে উত্তম মালিশ/ম্যাসাজ হচ্ছে, কাপিং থেরাপি, পানি, মধু এবং চিমটি/পিঞ্চিং। এইগুলা জমে থাকা চর্বিকে ভাঙ্গতে সাহায্য করে, তলপেটে রক্ত চলাচল বাড়ায়, এবং শরীরের অভ্যন্তরীণ সক্রিয়তা বাড়ায়। এটা আপনি নিজে নিজেও করতে পারেন অথবা কোন বিশেষায়িত সেলুনে গিয়েও করতে পারেন।

সূত্রঃ ব্রাইটসাইড

+ There are no comments

Add yours